Bandarban Sadar
০৯৬৭৮৮৪৪৪৮৫
0
স্বাগতম !

প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের এক অপার সমাহার বান্দরবান। যেখানে প্রকৃতি নিজ ঐশ্বর্যকে ঢেলে দিতে একটুও কৃপণতা করেনি। বান্দরবান পার্বত্য জেলা দূর্গম পাহাড়ি এলাকা হলেও এটি প্রাকৃতিক সম্পদে সমৃদ্ধ বিধায় জাতীয় পর্যায়ে জেলার গুরুত্ব অনস্বীকার্য। বিস্তীর্ণ পাহাড়ি এলাকায় অবস্থিত অশ্রেণীভূক্ত বনাঞ্চল মূল্যবান কাঠ বনজ সম্পদে পরিপূর্ণ। একইসাথে জেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত সাংগু মাতমূহুরী নদী উৎপাদিত বনজ সম্পদ আহরণ বিপননে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। জেলার উৎপাদিত প্রধান বনজ দ্রব্যের মধ্যে সেগুন, গামারী, গর্জন, শিল কড়ই, তৈলসুর ইত্যাদি মূল্যবান কাঠ বাঁশ প্রধান। কৃষিজ দ্রব্যের মধ্যে আনারস, কলা, পেঁপে, কমলা, লেবু আলু অন্যতম। এছাড়া বান্দরবানের আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী খাবার মুন্ডির কথা না বললে হয়তোবা লেখাটি অপরিপূর্ণ থেকে যাবে। কারণ, স্থানীয়ভাবে খাবারটি  ছোট-বড়, বুড়ো-বুড়িসহ সকল বয়সীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। খাবারটি তৈরি করতে প্রথমে চাল ভিজিয়ে রেখে ছোট ছিদ্রযুক্ত চালুনির ওপর রাখতে হয়। এরপর, চাপ প্রয়োগ করে নুডলসের মতো চিকন লম্বা মুন্ডি তৈরি হয়। সেগুলো সিদ্ধ করে গোলমরিচ পাহাড়ি মরিচের গুঁড়া, পেঁয়াজভাজা, ধনেপাতা, চিংড়ি শুঁটকিসহ নানা মসলা পরিমাণমতো মেশাতে হয়। প্রাচীনকাল থেকে মারমা জনগোষ্ঠী মুন্ডি তৈরি করে আসছে। বান্দরবানে আসা দেশি-বিদেশি পর্যটকদের কাছেও বিপুল জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে মুন্ডি। এবার বলি বান্দরবান নামকরণের পেছনে কিছু মজার কাহিনী। এলাকার বাসিন্দাদের প্রচলিত রূপকথায় আছে, এলাকায় একসময় অসংখ্য বানর বাস করত। আর এই বানরগুলো শহরের প্রবেশমুখে ছড়ার পাড়ে পাহাড়ে প্রতিনিয়ত লবণ খেতে আসত। এক সময় অনবরত বৃষ্টির কারণে ছড়ার পানি বৃ্দ্ধি পাওয়ায় বানরের দল ছড়া পাড় হয়ে পাহাড়ে যেতে না পারায় একে অপরকে ধরে ধরে সারিবদ্ধভাবে ছড়া পাড় হয়। বানরের ছড়া পারাপারের এই দৃশ্য দেখতে পায় এই জনপদের মানুষ। এই সময় থেকে এই জায়গাটির পরিচিতি লাভ করে ম্যাঅকছি ছড়া নামে অর্থাৎ মারমা ভাষায় ম্যাঅক অর্থ বানর আর ছি অর্থ বাঁধ। কালের প্রবাহে বাংলা ভাষাভাষির সাধারণ উচ্চারণে এই এলাকার নাম রুপ লাভ করে বান্দরবান হিসাবে। বর্তমানে সরকারি দলিল পত্রে বান্দরবান হিসাবে এই জেলার নাম স্থায়ী রুপ লাভ করেছে।বর্তমানে বান্দরবান সদর উপজেলায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগে, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যমে মহিলাদের ক্ষমতায়নের জন্যে "তথ্য আপা" প্রকল্পের কার্যক্রম রয়েছে। যা মহিলা শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় মহিলা সংস্থা কর্তৃক বাস্তবায়িত হচ্ছে। তথ্যকেন্দ্রের অফিসিয়াল নাম্বার- 01313704534 ঠিকানা- বান্দরবান সদর উপজেলা হোটেল প্লাজা সংলগ্ন সিরাজুল ইসলামের ভবন নিচ তলা সুন্দরবন কুরিয়ার পোস্ট অফিস, পোস্ট কোড ৪৬০০ বান্দরবান সদর।


সরিষার তেল
সরিষার তেল Tarin Jannat
৳ 240
থ্রিপিচ
থ্রিপিচ মিমি চাইন মারমা
৳ 1075
হাতের কাজের থ্রীপিস
হাতের কাজের থ্রীপিস রওশান আরা আরজু
৳ 2745
কটন থ্র পিস
কটন থ্র পিস আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 505
এমব্রয়ডারি কাজের থ্রি পিস
এমব্রয়ডারি কাজের থ্রি পিস আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 700
কানের দুল
কানের দুল আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 165
সুতি গাউন কোটি ওয়ান পিস
সুতি গাউন কোটি ওয়ান পিস আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 1345
মহিলাদের খিমার
মহিলাদের খিমার আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 755
ত্রিপিচ
ত্রিপিচ আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 700
কাতান টু পিচ
কাতান টু পিচ আয়েশা আক্তার জাহান
৳ 380
রেশমী চুড়ি
রেশমী চুড়ি জান্নাতুল ফেরদৌস তামান্না
৳ 110
জরজেট হিজাব
জরজেট হিজাব জান্নাতুল ফেরদৌস তামান্না
৳ 305
লেদার ব্যাগ
লেদার ব্যাগ রওশান আরা আরজু
৳ 2150
চিয়া সিড
চিয়া সিড Tarin Jannat
৳ 645
মিক্স বাদাম
মিক্স বাদাম Tarin Jannat
৳ 1185
নেকলেস
নেকলেস Ruhi Maliha
৳ 240
চকার
চকার Ruhi Maliha
৳ 270
কানের দুল
কানের দুল Ruhi Maliha
৳ 345
হাতের রিং
হাতের রিং Ruhi Maliha
৳ 90
মালা
মালা Ruhi Maliha
৳ 75
গয়না
গয়না Ruhi Maliha
৳ 325
জামা
জামা রওশান আরা আরজু
৳ 2150
জামা
জামা রওশান আরা আরজু
৳ 2150
জামা
জামা রওশান আরা আরজু
৳ 2365
লেদার ব্যাগ
লেদার ব্যাগ রওশান আরা আরজু
৳ 2150